1. admin@dailytolper.com : admin :
নোটিশ:
দৈনিক তোলপাড় পত্রিকা থেকে আপনাকে স্বাগতম। তোলপাড় পত্রিকা আপনার আমার সবার। আপনার এলাকার উন্নয়নের ভূমিকা হিসেবে পত্রিকাটির মাধ্যমে আমরা দায়িত্ব নিয়েছি।   এ জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা-উপজেলা-বিভাগ-কলেজ ক্যাম্পাসসহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় সাংবাদিক নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পত্রিকাটির পর্ষদ।  আগ্রহী হলে আপনিও এক কপি রঙিন ছবিসহ নিম্ন ঠিকানায় সিভি প্রেরণ করে নিয়োমিত সংবাদ পাঠাতে পারেন।   প্রচারে প্রসার, আপনার প্রতিষ্ঠান সারা বিশ্বে প্রচারেরর জন্য বিনামূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন।   বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন-০১৭১৯০২৬৭০০, prohaladsaikot@gmail.com

শ্রীবরদীতে চেয়ারম্যানের দুর্নীতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ, ২০২৩
  • ৪২ টাইম ভিউ

Visits: 6

রমেশ সরকার, শ্রীবরদী (শেরপুর):

শেরপুরের শ্রীবরদীর সিংগাবরুনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফকরুজ্জামান কালুর নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকালে উপজেলার কর্ণঝোড়া বাজারে এ বিক্ষোভ মিছিল শেষে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সিংগাবরনা ইউনিয়ন যুবলীগের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিলটি কর্ণঝোড়া বাজারের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে। মিছিলে অংশ গ্রহণকারীরা ইউপি চেয়ারম্যান ফকরুজ্জামান কালুর বিভিন্ন দুর্নীতির বিরুদ্ধে স্লোগান দেয়। পরে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, সিংগাবরুনা ইউনিয় আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোক্তারুজ্জান মুক্তার, সিংগাবরনা ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব, যুগ্ম-আহবায়ক ছানোয়ার হোসেন ছানু প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান ফকরুজ্জামান কালু ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে ভিজিডি কার্ড বিতরন, সরকারি ঘর বরাদ্দ, জন্ম নিবন্ধন ও পরিচয় পত্র প্রদানে ব্যাপক অনিয়ম দুর্নীতি করে আসছে। প্রত্যেক কাজে তাকে টাকা দিতে হয়। টাকা ছাড়া কিছুই দেন না তিনি।
কয়েকজন ভুক্তভোগী বলেন, প্রতিটি ভিজিডি কার্ড বিতরনে ৫ থেকে ৮ হাজার টাকা নিয়েছেন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ফকরুজ্জামান কালু। অনেকে টাকা দিয়েও কার্ড পাচ্ছেন না। ভূমিহীন পরিবারের কয়েকজন ভুক্তভোগী বলেন, তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার ভূমিহীন ও আশ্রয়হীনদের জমিসহ ঘর বরাদ্দের জন্য টাকা দিয়েও ঘর পায়নি। এখন টাকাও ফেরত পাচ্ছেন না। এসব দুর্নীতি অনিয়মের বিচার চান ভুক্তভোগীরা।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি চেয়ারম্যান ফকরুজ্জামান কালু বলেন, আমি আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের নির্বাচিত চেয়াম্যান। আমি ১৯৮২ সাল থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করি। আজো আছি। দলীয় কিছু লোক আমার কাছে ভিজিডি কার্ড নেয়ার জন্য আবদার করে। আমি তাদেরকে কার্ড দিতে না পারায় তারা আমার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। এ ব্যাপারে সুষ্ঠ তদন্ত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবে কর্তৃপক্ষ।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2017 তোলপাড়
Customized BY NewsTheme