আলোচনা সভায় মঈন খানের প্রশ্ন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ’৯৬ সালে হালাল হলে এখন হারাম কেন? – সারাক্ষণ সংবাদ
ঢাকাFriday , 3 March 2023
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লোসিভ
  6. কবিতা-সাহিত্য
  7. কুড়িগ্রাম
  8. কুমিল্লা
  9. খুলনা
  10. খেলাধুলা
  11. গণমাধ্যম
  12. চট্টগ্রাম
  13. চাকরি বার্তা
  14. জাতীয়
  15. ঢাকা

আলোচনা সভায় মঈন খানের প্রশ্ন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ’৯৬ সালে হালাল হলে এখন হারাম কেন?

admin
March 3, 2023 12:40 pm
Link Copied!

Visits: 1

তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা ১৯৯৬ সালে হালাল হলে এখন হারাম কেন, আওয়ামী লীগের কাছে এই প্রশ্ন রেখেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান।

বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা বলেন, ‘১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ তত্ত্বাবধায়ক সরকার দাবি করেছিল। সঙ্গে ছিল জামায়াত। তখন জামায়াত জোরদার দল ছিল, এখন ততটা নাই। সেই জামায়াতে ইসলামী দাবি করে যে, এই তত্ত্বাবধায়ক সরকার তো আমরা দাবি করেছিলাম, আওয়ামী লীগ তা হাইজ্যাক করে নিয়েছে। যে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ১৯৯৬ সালে হালাল ছিল, আজ কেন তা হারাম হয়ে গেল?’

শুক্রবার(৩মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসন ‘বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের অনিবার্যতা’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে ‘অন্তরে মম শহীদ জিয়া’।-খবর তোলপাড় ।

আব্দুল মঈন খান বলেন, ‘সংবিধানের জন্য মানুষ নয়, মানুষের জন্য সংবিধান। মানুষের প্রয়োজনে স্বাধীনতার পর থেকে ৫০ বছরে বাংলাদেশের সংবিধান বারবার লিখিত হয়েছে এবং তা হতে থাকবে। মানুষের প্রয়োজনে যেভাবে সংবিধান তৈরি করতে হয়, ঠিক সেভাবে করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘জনগণের দাবির মুখে ১৯৯৬ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা সংবিধানে অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন খালেদা জিয়া। সংবিধান সংশোধন করে এই তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা ২০১১ সালে বাতিল করেছে আওয়ামী লীগ সরকার। আদালত, সংশোধীয় কমিটি এবং অ্যামিকাস কিউরি সবাই বলেছিল আগামী দুই টার্ম তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে পারে। কিন্তু সরকার তা করেনি।’

সরকারের মাথা খারাপ হয়ে গেছে মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘তারা আবোলতাবোল কথা বলছে। আজ একজন বলে খালেদা জিয়া রাজনীতি করতে পারবেন, আরেকজন বলে করতে পারবেন না। পরশু একজন বলে রাজনীতি করতে পারবেন, তারপরের দিন আরেকজন বলে করতে পারবেন না।’

মঈন খান বলেন, ‘আওয়ামী লীগ উপলব্ধি করেছে, দেশের মানুষ খালেদা জিয়কে ভালোবাসে। হুমকি দিয়ে, মানুষ হত্যা করে, মানুষ গুম করে ক্ষমতায় থাকা যেতে পারে, কিন্তু মানুষের ভালোবাসা পাওয়া যায় না। তারা ১৪-১৫ বছর ক্ষমতায় আছে। আরও কতদিন ক্ষমতায় থাকবে তা জানি না। কিন্তু একটি কথা আমি বলতে চাই, পৃথিবীর ইতিহাস আপনারা অবলোকন করুন। কোনো স্বৈরাচার সরকার চিরদিন ক্ষমতায় থাকতে পারে না।’

সংগঠনের উপদেষ্টা ঢালি আমিনুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আহমেদ আজম খান, নির্বাহী কমিটির সদস্য শাম্মি আক্তার, বিলকিস জাহান শিরিন প্রমুখ।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।