রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন

ধসে পড়ল ‘রামপথ’

রিপোর্টারের নাম / ৫৮ টাইম ভিউ
Update : বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন, ২০২৪

ভারতের অযোধ্যায় বহুল আলোচিত বাবরি মসজিদ ভেঙে তৈরি রামমন্দিরে ফাটলের এবার পর ধস নামলো ‘রামপথে’। বুধবার (২৬ জুন) রাতের ওই ঘটনার জেরে রামমন্দিরে যাতায়াতের মূল পথ কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে।

তবে বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) সকাল থেকে রাস্তা মেরামতের কাজ শুরু করেছে অযোধ্যা জেলা প্রশাসন।-খবর তোলপাড় ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ২২ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রামমন্দির উদ্বোধন করেছিলেন। তার আগেই উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সরকার ‘যুদ্ধকালীন তৎপরতা’য় হনুমানগড়ী থেকে রামমন্দিরগামী সঙ্কীর্ণ পথটিকে দু’পাশের বাড়িঘর ভেঙে চওড়া করেছিল। নাম দেয়া হয়েছিল ‘রামপথ’। কিন্তু পাঁচ মাসের মাথায় প্রথম বৃষ্টিতেই ধস নামায় সেই রাস্তার মান নিয়ে এবার প্রশ্ন উঠেছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে সোমবার রামমন্দিরের গর্ভগৃহের ছাদ থেকে বৃষ্টির পানি চুঁইয়ে পড়তে শুরু করেছে বলে জানান মন্দিরটির প্রধান পুরোহিত আচার্য সত্যেন্দ্র দাস। ওই ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে তিনি বলেন, প্রথম বৃষ্টিতেই রামলালার মূর্তি স্থাপন করা গর্ভগৃহের ছাদ ফুটো হতে শুরু করেছে। বিষয়টিতে মনোযোগ দেয়া উচিত এবং কী ঘাটতি রয়েছে, তা খুঁজে বের করে মেরামত করা উচিত।

গত সোমবার মন্দিরের নিকাশি ব্যবস্থা অপ্রতুল বলেও অভিযোগ করে সত্যেন্দ্র বলেন, মন্দির থেকে পানি বের হওয়ার কোনও জায়গা নেই। বৃষ্টি আরও বাড়লে মন্দিরে পূজার্চনা করাই সমস্যা হয়ে দাঁড়াবে। তবে এরপর মন্দির নির্মাণ কমিটির চেয়ারম্যান নৃপেন্দ্র মিশ্র দাবি করেন, রামমন্দির নির্মাণের ক্ষেত্রে প্রযুক্তি, সরঞ্জাম বা অন্য কোনও ত্রুটি নেই। গত মঙ্গলবার তিনি বলেন, ‘রামমন্দির নির্মাণের ক্ষেত্রে মানের সঙ্গে কোনও আপস করা হয়নি। কিন্তু মন্দিরের বিদ্যুতের তারের পাইপগুলো বেয়ে পানি ভেতরে চলে আসছে। আর সেটাই চুঁইয়ে পড়ছে। আর ভক্তরা যাতে বৃষ্টিতে ভিজে না যান কিংবা প্রখর রোদে তাদের যাতে কষ্ট না হয়, সে জন্য অস্থায়ী নির্মাণকাজ করা হয়েছে। তার আশা, গোটা মন্দিরের নির্মাণকাজ চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর