1. admin@dailytolper.com : admin :
নোটিশ:
দৈনিক তোলপাড় পত্রিকা থেকে আপনাকে স্বাগতম। তোলপাড় পত্রিকা আপনার আমার সবার। আপনার এলাকার উন্নয়নের ভূমিকা হিসেবে পত্রিকাটির মাধ্যমে আমরা দায়িত্ব নিয়েছি।   এ জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা-উপজেলা-বিভাগ-কলেজ ক্যাম্পাসসহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় সাংবাদিক নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পত্রিকাটির পর্ষদ।  আগ্রহী হলে আপনিও এক কপি রঙিন ছবিসহ নিম্ন ঠিকানায় সিভি প্রেরণ করে নিয়োমিত সংবাদ পাঠাতে পারেন।   প্রচারে প্রসার, আপনার প্রতিষ্ঠান সারা বিশ্বে প্রচারেরর জন্য বিনামূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন।   বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন-০১৭১৯০২৬৭০০, prohaladsaikot@gmail.com

বাংলাদেশে ৭০ হাজার ছেলে-মেয়ে আউটসোর্সিংয়ের কাজ করছে জানিয়েছে প্রতিমন্ত্রী পলক

  • আপডেটের সময় : বুধবার, ২৪ মে, ২০২৩
  • ৭৭ টাইম ভিউ

Visits: 5

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী এড. জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, দেশে ৭০ হাজার ছেলে-মেয়ে আউটসোর্সিংয়ের কাজ করছে। যা বিগত ১৪ বছর আগে বাংলাদেশের মাটিতে এ কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রগুলো ছিল না। বুধবার (২৪ মে) দুপুরে সিংড়া উপজেলা হলরুমে বিপিও সামিট বাংলাদেশ ২০২৩ বিভাগীয় উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।-খবর তোলপাড় ।

প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, আমাদের কর্মক্ষন তরুন-তরুণীর ক্ষমতা বেশি। আমরা যদি তাদের দক্ষকর্মী হিসেবে গড়ে তুলতে পারি। তারা বিদেশে গিয়ে কাজ করতে পারে। এছাড়াও দেশে প্রশিক্ষণ গ্রহন করে নিজেকে দক্ষভাবে গড়ে তুলে বাড়িতে বসে অনলাইনে কাজ করে টাকা ইনকাম করতে পারবে। দেশের অগ্রযাত্রায় ব্যাপক ভূমিকা পালন করবে।

আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে আমাদের দেশে ৭০ হাজার ছেলে-মেয়ে বিভিন্ন রকম ক্ষেত্রে কাজ করছে। যা বিগত ১৪ বছর আগে বাংলাদেশের মাটিতে এ কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রগুলো ছিল না।

পলক বলেন, সিংড়ার ৮৫ হাজার ছেলে-মেয়েকে যদি দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তুলতে পারি। তাহলে আমাদের এখানে শেখ কামাল আইটি পার্ক, টেকনিক্যাল টেনিং সেন্টার, টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ ২০ হাজার ছেলে-মেয়ে টেনিং নেবে।

বাংলাদেশে ৬৪ হাজার প্রাইমারি স্কুল, ৩৫ হাজার হাই স্কুল, ১৫০টি বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতায় ২২০০ কলেজ, মাদ্রসায় প্রায় ৫০ লাখ সব মিলে ৫ কোটি ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। বিশ্বের খুব কম দেশ রয়েছে যে দেশের জনসংখ্যা ৫ কোটি। আমাদের কর্মক্ষন ছেলে-মেয়ে ৫ কোটি রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী পলক আরও বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের রুপকার ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুযোগ্য আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্ট্রা সজিব ওয়াজেদ জয় ভাই পরিকল্পনা নিয়ে ২০১০ সালে আইসিটি বিষয়টিকে ৬ষ্ঠ শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত বাধ্যতামূলক করেছেন। আমাদের ছেলে-মেয়েদের অবশ্যই কম্পিউটার শিক্ষায় পড়াতে হবে। সামনে ১ লক্ষ ৯ হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ইন্টারনেটের আওতায় আনা হবে। সেখানে আইটি টেনিংসহ বিভিন্ন প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। স্মাট দেশ গড়তে হলে স্মাট নাগরিক গড়ে তুলতে হবে। সেজন্য আমাদের দেশপ্রেম, সততা, নিষ্ঠাবান হতে হবে। আমাদের ছেলে-মেয়েদেরকে সেই স্মাট নাগরিক হিসেবে তৈরি করতে হবে।

নাটোরের জেলা প্রশাসক আবু নাছের ভূঞাঁ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্যে রাখেন, ফাউন্ডার ও মেন্টর নিজের বলার মতো একটা গল্প ফাউন্ডেশন’র প্রেসিডেন্ট, ইকবাল বাহার জাহিদ, বাংলাদেশ আইসিটি জার্নালিস্ট ফোরামের (বিআইজেএফ) নাজনীন নাহার, ই-ক্যাব’র সভাপতি শমী কায়সার, জেলা পুলিশ সুপার মো. সাইফুর রহমান, সিংড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহমুদা খাতুন প্রমুখ।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2017 তোলপাড়
Customized BY NewsTheme