‘কুখ্যাত’ রুশ জেনারেল সুরোভিন গ্রেপ্তার! – সারাক্ষণ সংবাদ
ঢাকাThursday , 29 June 2023
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. এক্সক্লোসিভ
  6. কবিতা-সাহিত্য
  7. কুড়িগ্রাম
  8. কুমিল্লা
  9. খুলনা
  10. খেলাধুলা
  11. গণমাধ্যম
  12. চট্টগ্রাম
  13. চাকরি বার্তা
  14. জাতীয়
  15. ঢাকা

‘কুখ্যাত’ রুশ জেনারেল সুরোভিন গ্রেপ্তার!

admin
June 29, 2023 2:07 pm
Link Copied!

Visits: 2

সিরিয়ায় ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়ে ‘কুখ্যাত কমান্ডার’ হিসেবে খ্যাতি পাওয়া রুশ জেনারেল সুরোভিনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট দপ্তর ক্রেমলিন সুরোভিকিনের গ্রেপ্তারের গুঞ্জনের বিষয়টি উড়িয়ে দিয়েছে। তারা বলেছে, বিদ্রোহের পর অনেক গল্প বের হয়েছে এবং সামনেও বের হবে।

বৃহস্পতিবার(২৯জুন) মস্কো টাইমসের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, রাশিয়ার ভাড়াটে সেনাবাহিনী ওয়াগনার গ্রুপ গত ২৩ জুন হঠাৎ করে বিদ্রোহ করে। আর এ বিদ্রোহের পর দেশটির সেনাবাহিনীর শীর্ষ দুই জেনারেল ভ্যালারি গেরাসিমোভ এবং সের্গেই সুরোভিকিন আড়ালে চলে গেছেন। গুঞ্জন ওঠেছে, ‘কুখ্যাত’ কমান্ডার হিসেবে পরিচিত সুরোভিনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।-খবর তোলপাড় ।

এদিকে, চিফ অব জেনারেল স্টাফ ভ্যালারি গেরাসিমোভকে শনিবারের ওই বিদ্রোহের পর টিভি চ্যানেলে উপস্থিত হতে দেখা যায়নি। ওইদিন ওয়াগনার প্রধান ইয়েভগিনি প্রিগোজিন দাবি করেছিলেন, গেরাসিমোভকে তার হাতে তুলে দিতে হবে। এছাড়া গত ৯ জুন থেকে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত বিবৃতিতে গেরাসিমোভের নামও উল্লেখ করা হয়নি।

অপরদিকে, সিরিয়ায় ধ্বংসযজ্ঞ চালানো জেনারেল সুরোভিকিনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে রাশিয়ার সংবাদমাধ্যম মস্কো টাইমস। সিরিয়ান শহরকে ধসিয়ে দেয়ার কারণে তাকে ‘কুখ্যাত কমান্ডার’ হিসেবে অভিহিত করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমসকে এক গোয়েন্দা কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ওয়াগনারের বিদ্রোহ সম্পর্কে আগে থেকেই জানতেন জেনারেল সুরোভিকিন। এখন তদন্ত করা হচ্ছে- এর সঙ্গে তার কোনো সম্পৃক্ততা আছে কিনা।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে অস্বীকার করা না হলেও কয়েকজন সামরিক ব্লগার জানিয়েছেন, শনিবারই সুরোভিকিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওইদিনের পর থেকে তার পরিবার আর তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি।

এছাড়া ওয়াগনার প্রধান ইয়েভগিনি প্রিগোজিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই সোইগু ও ভ্যালারি গেরাসিমোভের সমালোচনা করলেও, তিনি সুরোভিকিনের প্রশংসা করতেন। যেদিন ওয়াগনার বিদ্রোহ শুরু করে, সেদিন সুরোভিকিন একটি ভিডিওতে বিদ্রোহ থামানোর আহ্বান জানান। তবে ওই সময় তাকে অনেকটা বিধ্বস্ত দেখা যাচ্ছিল।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাবেক এক প্রভাবশালী কর্মকর্তার টেলিগ্রাম চ্যানেল রায়বার জানিয়েছে, ওয়াগনারের বিদ্রোহের পর রাশিয়ার সশস্ত্র বাহিনীতে এখন শুদ্ধি অভিযান চলছে।

চ্যানেলটিতে জানানো হয়েছে, ওয়াগনারের বিদ্রোহ প্রাথমিক অবস্থাতেই থামাতে যেসব সেনা কর্মকর্তা ব্যর্থ হয়েছেন তাদের সরিয়ে দেওয়া হতে পারে। আর যারা সরকারের পক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন তাদের পদোন্নতি দেওয়া হতে পারে। তবে সশস্ত্র বাহিনীতে এখন শুদ্ধি অভিযান চালানোর বিষয়টি- ইউক্রেনে রাশিয়ার কথিত সামরিক অভিযানে প্রভাব ফেলতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, সুরোভিকিন সিরিয়ায় সফলভাবে বাশার আল-আসাদ বিরোধীদের দমন করায়- তাকে ইউক্রেন যুদ্ধের কমান্ডার হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছিল। কিন্তু কয়েকদিন পরই তাকে সরিয়ে দিয়ে আবার ভ্যালারি গেরাসিমোভকে দায়িত্ব দেয়া হয়।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।