1. admin@dailytolper.com : admin :
নোটিশ:
দৈনিক তোলপাড় পত্রিকা থেকে আপনাকে স্বাগতম। তোলপাড় পত্রিকা আপনার আমার সবার। আপনার এলাকার উন্নয়নের ভূমিকা হিসেবে পত্রিকাটির মাধ্যমে আমরা দায়িত্ব নিয়েছি।   এ জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা-উপজেলা-বিভাগ-কলেজ ক্যাম্পাসসহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় সাংবাদিক নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পত্রিকাটির পর্ষদ।  আগ্রহী হলে আপনিও এক কপি রঙিন ছবিসহ নিম্ন ঠিকানায় সিভি প্রেরণ করে নিয়োমিত সংবাদ পাঠাতে পারেন।   প্রচারে প্রসার, আপনার প্রতিষ্ঠান সারা বিশ্বে প্রচারেরর জন্য বিনামূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন।   বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন-০১৭১৯০২৬৭০০, prohaladsaikot@gmail.com

ধানমণ্ডিতে শিক্ষার্থী ধর্ষণ

  • আপডেটের সময় : শনিবার, ৮ জুলাই, ২০২৩
  • ৯৪ টাইম ভিউ

Visits: 3

ধানমণ্ডি এলাকার একটি ভবনের ছাদে নিয়ে শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত মাহাদি হাসান জারিফ (২৫) নামে এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বরিশাল মহানগর পুলিশের (বিএমপি) কোতোয়ালি থানার জর্ডান রোডের সৎ বাবার বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

শুক্রবার(৭জুলাই) সকালে ধানমন্ডি থানার ওসি পারভেজ ইসলাম বলেন, ধানমণ্ডি ৩/এ সড়কের একটি ভবনের ছাদে এক শিক্ষার্থীকে নিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে বরিশালে সৎ বাবার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করে ঢাকায় আনা হয়েছে।-খবর তোলপাড় ।

ওসি আরও বলেন, গ্রেপ্তার মাহাদি পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছে। এরপর সে বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে বেড়াত। তাকে গ্রেপ্তারের পর আমরা জানতে পেরেছি, ঢাকার কল্যাণপুরে তার মামার বাসা। বরিশাল থেকে এসে এখানে থাকত। আর ধানমণ্ডি লেক ও এর আশেপাশে ঘুরে বেড়াত। এই এলাকায় তার ফ্রেন্ড সার্কেল আছে। তাদের নিয়ে লেকে আসা বিভিন্ন মেয়েদের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে তুলত বলে স্বীকার করেছে। এছাড়া একবার লেক থেকে সাইকেল চুরি করতে গিয়ে ধরা পরেছিলো বলে জানতে পেরেছি।

ঘটনার দিনের তথ্য তুলে ধরে ওসি পারভেজ বলেন, গত ৩ জুলাই ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বাসা থেকে অভিমান করে বের হয়ে ধানমণ্ডি লেকে আসে। সে মন খারাপ করে বসে ছিলো। এই সময় মাহাদি মেয়েটিকে টার্গেট করে। মেয়েটা সহজ সরল হওয়ায় তার ফাঁদে পরে যায়। গ্রেপ্তার মাহাদি মেয়েটিকে নানাভাবে কথার ফাঁদে ফেলে বিভিন্ন দিকে ঘুরায়। এর এক পর্যায়ে ৩/এ নম্বর সড়কের এ এম এম সেন্টার নামের একটি ভবনের সাত তলার ছাদে রেস্টুরেন্টে খাওয়ানোর কথা বলে ধর্ষণ করে। পরে মেয়েটাকে রেখে সে পালিয়ে বরিশাল চলে যায়।

এদিকে গত ৪ জুলাই ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে ধানমন্ডি থানায় অজ্ঞাত আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আসামিকে আদালতে পাঠানো হবে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2017 তোলপাড়
Customized BY NewsTheme