1. admin@dailytolper.com : admin :
নোটিশ:
দৈনিক তোলপাড় পত্রিকা থেকে আপনাকে স্বাগতম। তোলপাড় পত্রিকা আপনার আমার সবার। আপনার এলাকার উন্নয়নের ভূমিকা হিসেবে পত্রিকাটির মাধ্যমে আমরা দায়িত্ব নিয়েছি।   এ জন্য বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা-উপজেলা-বিভাগ-কলেজ ক্যাম্পাসসহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় সাংবাদিক নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পত্রিকাটির পর্ষদ।  আগ্রহী হলে আপনিও এক কপি রঙিন ছবিসহ নিম্ন ঠিকানায় সিভি প্রেরণ করে নিয়োমিত সংবাদ পাঠাতে পারেন।   প্রচারে প্রসার, আপনার প্রতিষ্ঠান সারা বিশ্বে প্রচারেরর জন্য বিনামূল্যে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন।   বিজ্ঞাপন প্রচারের জন্য যোগাযোগ করুন-০১৭১৯০২৬৭০০, prohaladsaikot@gmail.com

নেপালের সঙ্গে ২৫ বছর মেয়াদি বিদ্যুৎ চুক্তি বাংলাদেশের

  • আপডেটের সময় : রবিবার, ৯ জুলাই, ২০২৩
  • ৮০ টাইম ভিউ

Visits: 6

হিমালয়ের দেশ নেপালের সঙ্গে ৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানিতে ২৫ বছর মেয়াদি একটি চুক্তিতে রাজি হয়েছে বাংলাদেশ। কাঠমান্ডু ও ঢাকার কর্মকর্তারা দীর্ঘ মেয়াদের এই চুক্তির বিষয়ে একমত জানিয়েছে নেপাল বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের এক কর্মকর্তা। রবিবার(৯জুলাই) নেপালের গণমাধ্যম দ্যা কাঠমান্ডু পোস্টের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।-খবর তোলপাড় ।

এখন পর্যন্ত শুল্ক নির্ধারন না হলেও চুক্তির মেয়াদ নির্ধারণ হয়েছে। এতে করে বাংলাদেশে নেপালের বিদ্যুতের দীর্ঘমেয়াদি বাজার নিশ্চিত হলো।

নেপাল বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কুল মান ঘিসিং কাঠমান্ডু পোস্টকে বলেন, আমরা বাংলাদেশের সাথে ২৫ বছর মেয়াদি বিদ্যুৎ রপ্তানি চুক্তিতে সই করতে সম্মত হয়েছি। এটি বাংলাদেশ এবং আমাদের প্রস্তাবের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ অবশেষে ২৫ বছরের চুক্তিতে সম্মত হয়েছে, যেটি এখনো স্বাক্ষরিত হয়নি। শুল্ক বাদে আমরা অন্য সব বিষয়ে একটি সমঝোতায় পৌঁছেছি।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, নেপালের প্রধানমন্ত্রী পুষ্প কমল দাহাল ৩১শে মে থেকে ৩রা জুন পর্যন্ত ভারত সফর করেন। এ সময়ে ভারতের সঙ্গে দীর্ঘমেয়াদে আন্তঃসরকার বিদ্যুৎ বাণিজ্য বিষয়ক যে চুক্তির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে, বাংলাদেশের সঙ্গেও সেই একই রকম চুক্তি হয়েছে।

নেপাল বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের বিদ্যুৎ বাণিজ্য বিষয়ক পরিচালক প্রবাল অধিকারী জানান, বিদ্যুৎ খাতে অনিশ্চয়তার কথা তুলে ধরে নেপাল বাংলাদেশকে আগেই একটি প্রস্তাব দেয়। তাতে বলা হয়, নেপাল ৫ বছর মেয়াদী চুক্তি পছন্দ করে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, শুল্কের বিষয়ে সমঝোতা করতে উন্মুক্ত নেপাল বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ।

প্রবাল অধিকারী জানান, সঞ্চালন চার্জ, সার্ভিস ফিসহ এনটিপিসি বিদ্যুৎ ভাইপার নিগাম লিমিটেডকে (এনভিভিএন) সরাসরি পরিশোধ করতে হবে বাংলাদেশকে। ভারত বর্তমানে বিদ্যুতের ক্রেতাদের কাছ থেকে যে চার্জ নিচ্ছে, সেই সমতুল্য চার্জ প্রযোজ্য হবে সঞ্চালনে।

তিনি আরও বলেন, লোড সহ সঞ্চালন বিষয়ক অবকাঠামোর প্রযুক্তিগত অবস্থার ওপর নির্ভর করে প্রতি ইউনিটের সঞ্চালন চার্জ ভারতের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বাংলাদেশকে পরিশোধ করতে হতে পারে ভারতীয় মুদ্রায় ৪০ থেকে ৫৫ পয়সা।

কাঠমান্ডু পোস্টের প্রতিবেদনের আরও বলা হয়, ভারতের নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদন পেতে ভারতীয় কোম্পানিগুলো যে প্রচেষ্টা চালিয়েছে তার জন্য সার্ভিস ফি পরিশোধ করতে হতে পারে বাংলাদেশি সংস্থার। নেপাল ও বাংলাদেশ শুল্কের বিষয়ে সমঝোতায় আসলেই ত্রিপক্ষীয় এই চুক্তির দ্রুত সম্পন্ন হবে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© All rights reserved © 2017 তোলপাড়
Customized BY NewsTheme