রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১০:০১ পূর্বাহ্ন

ট্রেনে তরুণীকে ধর্ষণ: খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম স্থগিত

রিপোর্টারের নাম / ৪২ টাইম ভিউ
Update : বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন, ২০২৪

চলন্ত আন্তঃনগর ট্রেনে তরুণীকে (১৯) ধর্ষণের ঘটনায় খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান এস এ করপোরেশনের কার্যক্রম স্থগিত করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এর আগে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে এই প্রতিষ্ঠানের তিনজন কর্মচারীকে গ্রেপ্তার করে রেলওয়ে পুলিশ।

বুধবার (২৬ জুন) বাংলাদেশ রেলওয়ের অ্যাসিস্ট্যান্ট চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার (আর-পূর্ব) মোহাম্মদ আবু বক্কর সিদ্দিকী স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনাপত্র থেকে এ তথ্য জানা গেছে।-খবর তোলপাড় ।

জানা গেছে, প্রতিষ্ঠানটি চট্টগ্রাম-সিলেট রুটে চলাচলরত উদয়ন ও পাহাড়িকা এক্সপ্রেসে খাবার সরবরাহের (ক্যাটারিং সার্ভিস) কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল। প্রতিষ্ঠানটির মালিক মোহাম্মদ শাহ আলম।

তার উদ্দেশে দেয়া নির্দেশনাপত্রে বলা হয়েছে, ‘গত ২৫ জুন দিবাগত রাত ১০টায় সিলেট স্টেশন থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস (৭২৪) ট্রেনে ক্যাটারিং সার্ভিস প্রদানের জন্য আপনার প্রতিষ্ঠানের নিয়োজিত কর্মচারী শরিফ গং কর্তৃক একটি অপরাধ সংঘটিত হয়েছে মর্মে প্রাথমিক তথ্য পাওয়া গেছে।

এমতাবস্থায়, পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত পাহাড়িকা এক্সপ্রেস (৭১৯/৭২০) ও উদয়ন এক্সপ্রেস (৭২৩/৭২৪) ট্রেনে আপনার প্রতিষ্ঠানের দেয়া ক্যাটারিং সার্ভিস পরিচালনাসংক্রান্ত সকল কার্যক্রম স্থগিত করা হলো।

এর আগে, বুধবার ভোর সাড়ে চারটার দিকে সিলেট থেকে চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনে ধর্ষণের শিকার হন ১৯ বছর বয়সী এক তরুণী। চলন্ত ট্রেনটি ওই সময় লাকসাম এলাকা পার হচ্ছিল। ভোরে এই ঘটনা ঘটলেও বিষয়টি জানাজানি হয় সন্ধ্যার পর।

জানা গেছে, ওই তরুণীর বাড়ি বান্দরবানে। বাড়িতে যেতে উদয়ন এক্সপ্রেসে করে চট্টগ্রামে আসছিলেন। তিনি সিলেট থেকে উঠে খাবার বগিতে অবস্থান করেন। ওই সময় খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান এস এ করপোরেশনের কয়েকজন কর্মী তরুণীকে প্রথমে উত্ত্যক্ত এবং পরে ধর্ষণ করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

এক ক্লিকে বিভাগের খবর